নবীগঞ্জে ইউপি ।। রোববার নির্বাচন

নবীগঞ্জ ( হবিগঞ্জ)  থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা: নবীগঞ্জ উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান, সাধারন সদস্য ও সংরক্ষিত প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা দীর্ঘ প্রায় ১ এক মাস নির্ঘুম প্রচারনা করে ব্যস্ত সময় পার করেছেন।  শুক্রবার প্রচারনার শেষ দিনে তারা ভোটাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট চেয়ে দোয়া ও আশীর্বাদ চেয়েছেন। প্রার্থী সমর্থকদের প্রচারনায় মুখরিত ছিল উপজেলার জনপথ। গণসংযোগ, মিছিল ও শোডাউন এর মাধ্যমে আজ রাত ১২ টার পর শেষ হবে প্রচার প্রচারনা।

আগামী রোববার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে একটানা ভোট গ্রহণ চলবে।
নির্বাচন অবাধ,সৃষ্টু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সম্পূর্ণ করতে ইতিমধ্যেই উপজেলা নির্বাচন কমিশন সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে।
নির্বাচনে ১৩ ইউনিয়নে মোট ৬১জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। স্থানীয় এ নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নিলেও আওয়ামীলীগের প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী প্রার্থী। তাদের মধ্যই হবে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই।
সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত প্রার্থীদের মধ্য দলীয় প্রতীক বরাদ্দ না থাকায় যে যার মতো ভোট চাইছেন।
এখন দেখার বিষয় কে হচ্ছেন আগামী বছরের জন্য নিজ নিজ ইউনিয়নের অভিভাবক।
নবীগঞ্জ  উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা দেবশ্রী দাশ পার্লী বলেন, নবীগঞ্জে ১৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর করতে সার্বিক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। নির্বাচনী আচরণবিধি নজরদারির জন্য ম্যাজিস্ট্রেট কাজ করেছেন। এরই মধ্যে নির্বাচনী মালামাল এসে পৌঁছেছে নবীগঞ্জে। নির্বাচন কেন্দ্রগুলোর নিরাপত্তা জোরদারের জন্য প্রস্তুতি সম্পন্ন। তিনি আরো বলেন, অবাধ-নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য প্রার্থী ও ভোটারের সহযোগিতা প্রয়োজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ জাতীয় আরো খবর..

নবীগঞ্জে যানযট নিরসনে উচ্ছেদ অভিযান!।। যানজট নিরসনে বাইপাস সড়কের ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে _এমপি মিলাদ নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা : নবীগঞ্জে আইন শৃঙ্খলা কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক শহরের যানযট নিরসনের জন্য নবীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যােগে হবিগঞ্জ -১ আসন্নের এপপি মিলাদ মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারি সকালে ১১ টা থেকে বিকাল ২.৩০ মিনিট পর্যন্ত নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মর্কতা শেখ মহি উদ্দিনের নেৃত্বেতে শহরের যানযট নিরসন ও অবৈধ ফুটপাত দখলমুক্ত করতে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় শহরের মধ্যবাজার, হাসপাতাল সড়ক, ও শেরপুর রোড, নতুন বাজার মোড়সহ বিভিন্ন পয়েন্টে এই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনায় করা হয়। এ সময় নবীগঞ্জ উপজেলা নিবার্হী কর্মর্কতা শেখ মহি উদ্দিন হেন্ডমাইক দিয়ে দোকানদারকে তাদের নির্ধারিত স্থানের বাহিরের দোকানের আসবাবপত্র না রাখার অনুরোধ করেন। নির্দশনা না মানে হলে আইন গত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। বিভিন্ন যানবাহন কে সঠিক স্থানে গাড়ি পার্কিং নির্ধারিত থাকতে হবে । এ সময় বক্তব্য রাখেন নবীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব ছাবির আহমদ চৌধুরী, নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহম্মদ ডালিম আহমদ,নবীগঞ্জ ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী, নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুস্তাক আহমেদ মিলু , নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি রাকিল হোসেন,নবীগঞ্জ বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাহবুবল আলম সুমন, নবীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হাবিব, এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি আব্দাল মিয়া,পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো: বেলাল আহমেদ, বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও ভিন্ন জনপ্রতিনিধি গণ প্রমুখ। উচ্ছেদ অভিযানে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ ডালিম আহমদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ বাহিনী সার্বিক সহযোগিতা করেন। এসময় নিবার্হী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন বলেন,উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক আমরা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনার করার আগেরদিন শহরের মাইকিং করে জানিয়ে দিয়েছি এর জন্য অনেক অবৈধ দখলদার তাদের মালামাল নিয়ে গেছেন। আমাদের উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত থাকবে। নির্দেশনা না মানলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। হবিগঞ্জ -১ আসনের গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ গাজী এমপি বলেন, আধুনিক শহর গড়তে যানযট মুক্ত করতে হবে। আমি ইতিমধ্যে যানজট নিরসনে একটি বাইপাস সড়কের ব্যবস্থা করেছি। যারা অবৈধভাবে ফুটপাত দখল করে যানজট তৈরি করবে উপজেলা প্রশাসন জরিমানাসহ মালামাল বাজেয়াপ্ত করার জন উপজেলা প্রশাসনকে নির্দেশ প্রধান করেছি’।

ফেসবুকে আমরা